যেসব চাকরিতে মোটা বেতন মেলে, কিন্তু প্রার্থী মেলে না

সবাই এমন একটা চাকরি চান যাতে অনেক বেতন মেলে। কিন্তু সবার ভাগ্য কি আর এমন চাকরি জোটে? আবার এমন চাকরিও আছে যাতে মোটা বেতন মেলে। কিন্তু অবিশ্বাস্য হলেও সত্য, এসব চাকরি আর কেউ করতে চান না। এমন সব চাকরির একটি তালিকা প্রকাশ করেছে আমেরিকা। সেখানে দেখা গেছে অনেক পরিচিত চাকরির খাত। এখানে পয়সা বেশি, কিন্তু আগ্রহী প্রার্থীর অভাবে ভুগছে পদগুলো। দেখে নিন এক নজরে।

১. কাঁকড়া শিকারী 
এটাকে ব্যাপক ঝামেলার এবং নোংরা এক চাকরি বলে মন্তব্য করা হয়। মার্কিন মুলুকে এ কাজ করে মাসে ১৫ হাজার ডলার পর্যন্ত কামানো যায়। কিন্তু কাজটি ঝুঁকিপূর্ণ। সামান্য ভুলে প্রাণটা হুমকীর মুখে পড়ে যেতে পারে। কাজেই যারা এ পেশায় থাকেন, তাদের অবস্থা বেগতিক থাকে।

২. খনি ব্যবস্থাপনা 
খনির কাজগুলো মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ ও নোংরা। একটা সময় আমেরিকান মধ্যবিত্তদের মাঝে খনির সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের নিয়ে নাক কুঁচকানো বিষয় ছিল। যদি খনি ব্যবস্থাপনায় কাজ করতে চান, তো অনায়াসে বছরে ২ লাখ ডলার পর্যন্ত আয় করা যায়। কিন্তু কেউ-ই এ কাজে যেতে চান না।

৩. স্যানিটেশন 
নোংরা একটা কাজ। সবাই করতে পারেন না। আগ্রহীও নন কেউ। অথচ আয় বেশ ভালো। মোটা বেতনের লোভ দেখিয়েও কর্মী মেলে না এখানে। মল-মূত্র আর ময়লার মাঝে কে থাকতে চান?

৪. টোল বুথ অপারেটর 
সেতুর টোল বুথ অপারেটর কিন্তু আমেরিকার বেশ ভালো বেতনের চাকরি হিসাবে গণ্য। কিন্তু ছোট একটি বাক্সের মতো ঘরে বন্দি হয়ে থেকে কাজ করে যাওয়ার মানসিক যন্ত্রণা কেউ নিতে পারেন না। তাই চাকরির নিরাপত্তা ও ভালো বেতন থাকার পরও প্রার্থী মেলে না।

৫. পুলিশ অফিসার
সত্যিকার অর্থে আমেরিকায় পুলিশের চাকরির প্রতি মানুষের আগ্রহ ব্যাপকভাবে কমে গেছে। রাজনৈতিক ও সামাজিক অস্থিরতা এবং জঙ্গি হামলার খেসারত গুনছে এ খাত। বেতন অনেক হলেও মানুষ আর পুলিশে আসতে চায় না।

৬. ওয়েল রিগ শ্রমিক 
কাঁকড়া শিকারের মতোই এই কাজটিও দারুণ যন্ত্রণাদায়ক। একেবারে বিচ্ছিন্ন হয়ে থাকতে হয়। মূল ভূখণ্ড থেকে বহু দূরে কোনো রিগেই আপনার মৃত্যু ঘটতে পারে। অনেক বেতন আর নানাবিধ সুবিধা রয়েছে এতে। কিন্তু কেউ-ই করতে চান না। এর কর্মীরা বছরে ৬ অঙ্কের বেতন অনায়াসে পান।

৭. প্লাম্বার 
এদের দরকার খুব বেশি। তাই বেতনও বেশি। এ খাতের আয় দিয়ে দিব্যি মধ্যবিত্তের সংসার চালানো সম্ভব। কিন্তু কেউ এতে আগ্রহী নন। তবে এ তালিকার অন্যান্য চাকরির তুলনায় অনেক ভালো এক পেশা।

৮. অপরাধের স্থান পরিষ্কার করার কর্মী 
শুনলে একটু অদ্ভুত পেশা বলেই মনে হবে। কোথাও অপরাধ সংঘটিত হলে পুলিশের কাজ শেষে ওই স্থানটি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে দিতে হয়। এ কাজে বছরে ৮০ হাজার ডলারের মতো কামাই হতে পারে। কিন্তু কারো মনে এই কাজের আগ্রহ নেই।

৯. প্রোক্টোলজিস্ট 
এই চাকরিতে গ্ল্যামার নেই। কিন্তু আমেরিকার মধ্যে বহু পয়সা দেওয়া হয় প্রোক্টোলজিস্টদের। মলদ্বার ও মলাশয়ের কোনো সমস্যা দূর করতে সার্জাই করেন প্রোক্টোলজিস্টরা। কিন্তু কোনভাবে এই পেশা আকর্ষণীয় নন অধিকাংশের কাছে। তাই অভাব থেকেই গেছে।

১০. পোডিয়াট্রিস্ট 
পায়ের নানা সমস্যা নিয়েই কাজ করেন এই চিকিৎসকরা। অর্থাৎ, তাদের কাজ দুর্গন্ধযুক্ত বলেই মনে করা হয়। এতে প্রচুর আয় করা যায়। কিন্তু অদ্ভুত কারণে এর প্রতিও আগ্রহ নেই চিকিৎসকদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*